দলের বিষয় নয় খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি: ফখরুল

Monday, April 15th, 2019

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবিমির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

 

ডেস্ক নিউজঃ বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, তাঁদের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি দলের নয়, এটা খালেদা জিয়া ও তাঁর পরিবারের বিষয়। তাই এ নিয়ে দলীয় চেয়ারপারসনের সঙ্গে তাঁর খুব বেশি আলোচনা হয়নি।

আজ সোমবার রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাত শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন মির্জা ফখরুল। পয়লা বৈশাখে কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতে প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না, জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব এ কথা বলেন।

ওলামা দলের নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির সদস্যদের নিয়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরের সামনে মোনাজাতে অংশ নেন মির্জা ফখরুল।

বিএনপির নির্বাচিত প্রার্থীদের সংসদে যাওয়ার বিষয়ে দলে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না? জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, এ বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। বিএনপি থেকে নির্বাচিত এক থেকে দুইজন প্রার্থী সংসদে যেতে চাচ্ছেন—এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘এ ধরনের কোনো ইনফরমেশন আমাদের কাছে নেই।’বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাঁর স্বাস্থ্য এবং তাঁর যেন আরও ভালো চিকিৎসা হয়, সেসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। খালেদা জিয়া তাঁর মামলাগুলোর সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। দলের অবস্থা সম্পর্কে তিনি জানতে চেয়েছেন এবং দলের নেতা-কর্মীদেরকে বৈশাখের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার জন্য খালেদা জিয়া আহ্বান জানিয়েছেন। খালেদা জিয়া আরও বলেছেন, দল ও দেশের জনগণের যে ঐক্য, সেই ঐক্য যেন অটুট থাকে।

বিএনপি কী ধরনের আন্দোলন করবে? ‘এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আন্দোলনের বিভিন্ন ধাপ, ধরন ও কৌশল থাকে। আন্দোলন বলতে শুধু হরতাল ও অবরোধ যদি বোঝেন, তাহলে আপনাদের এ বিষয়ের সঙ্গে আমরা একমত হতে পারি না। আর জনগণের মধ্যে একটা আলোড়ন সৃষ্টি করতে হবে এবং জনগণকে নিয়ে সোচ্চার হতে হবে—এটাই আমরা আন্দোলন মনে করি। এর জন্য আমরা কাজ করছি এবং প্রস্তুতি নিচ্ছি। সুতরাং আন্দোলনের মধ্যে দিয়েই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আনতে সক্ষম হব।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারতের মধ্যে দিয়ে আমরা শপথ নিয়েছি, যে গণতন্ত্রকে হরণ করা হয়েছে, খালেদা জিয়াসহ দলের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে আটক করে রাখা হয়েছে এবং মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে—এই সকল অন্যায় ও অবিচারের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলনকে আরও বেগবান করব। আর আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করব এবং গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনব।’

ওলামা দলের আহ্বায়ক প্রিন্সিপাল মাওলানা শাহ মো. নেছারুল হক, সদস্যসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারসহ সংগঠনটির নেতা-কর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।