বিদায় বলেছিলেন রোনালদো ফাইনালের আগেই

Monday, February 11th, 2019

রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত অনেক আগেই জানিয়েছেন রোনালদো। ছবি: এএফপিরিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত অনেক আগেই জানিয়েছেন রোনালদো। ছবি: এএফপি

 

ডেস্ক নিউজঃ রোনালদোকে জড়িয়ে ধরে ‘সে কেদা’ বলে ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কখনো দেননি মার্সেলো। নেইমারের বহু আলোচিত দলবদলের আগে ‘সে থাকছে’ বলে বার্সেলোনা সমর্থকদের সাহস দিয়েছিলেন জেরার্ড পিকে। পিকে ও বার্সেলোনার মধ্যকার সম্পর্কের চেয়েও ভালো সম্পর্ক ছিল মার্সেলো ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর মাঝে। তবু বন্ধুকে নিয়ে দলবদলের গুঞ্জন সৃষ্টি হওয়ার পর এমন কিছু করার চেষ্টা করেননি ব্রাজিলিয়ান ফুলব্যাক। করবেন কীভাবে? দলবদলের বহু আগ থেকেই যে জানতেন আটকে রাখা যাবে না রোনালদোকে।

বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার ঠিক আগেই বোমা ফাটিয়েছিলেন রোনালদো। ১০ জুলাই রোনালদোর রিয়ালের সঙ্গে সম্পর্ক চুকেবুকে যায়। কিন্তু এত দিন পরে জানা যাচ্ছে, জুন বা জুলাই নয়, রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত রোনালদো বিশ্বকাপের বহু আগেই নিয়েছেন। এস্পোর্ত ইন্টারেকটিভের সঙ্গে কথোপকথনেই মার্সেলো জানিয়েছেন। তাঁকে দল ছাড়ার কথা চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের আগে জানিয়েছেন রোনালদো। লিভারপুলকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের হ্যাটট্রিক করেছে রিয়াল। এমন অনন্য এক অর্জনকে সামনে পেয়েও ক্লাব ছাড়া কথা ভেবেছেন সিআর সেভেন।

ফাইনালে জেতার পরই রোনালদো নিজের ক্লাব ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তবে মার্সেলো জেনেছেন এর আগেই, ‘আমরা ফাইনালের জন্য অনুশীলন করছিলাম এবং সে আমাকে বলল, “আমি যাচ্ছি।” সাংবাদিক বিস্মিত হয়ে জিজ্ঞেস করলেন, ‘সে আপনাকে ফাইনালের আগেই বলেছিল? তুমি তো তাহলে আমার সঙ্গে মিথ্যা বলেছ (এর আগে এ প্রসঙ্গে মার্সেলো বলেছিলেন তিনি জানতেন না দল ছাড়ার কথা)।’ মার্সেলো আত্মপক্ষ সমর্থন করলেন, ‘হ্যাঁ, আমাকে মিথ্যা বলতে হয়েছিল।’

রোনালদো ক্লাব ছেড়েছেন, কিন্তু মার্সেলোর সঙ্গে সম্পর্ক এখনো শেষ হয়নি। রিয়ালের সাবেক সতীর্থদের মধ্যে একমাত্র মার্সেলোর সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেছেন রোনালদো। এ কারণেই কদিন পর পর মার্সেলোর জুভেন্টাসে যাওয়ার গুঞ্জন ওঠে। তবে মার্সেলো বল দিয়েছেন, জুভেন্টাস অসাধারণ ক্লাব কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গেই তাঁর চুক্তি।