মাথা ঠিক রাখার কৌশল টুইটার প্রতিষ্ঠাতার

Monday, April 15th, 2019

জ্যাক ডরসি। ছবি: এএফপিজ্যাক ডরসি। ছবি: এএফপি

 

ডেস্ক নিউজঃ কাজে মনোযোগী ও মস্তিষ্ক ক্ষুরধার রাখতে অদ্ভুত জীবন যাপন করছেন টুইটারের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি। দিনে মাত্র এক বেলা খাচ্ছেন; তাও মাছ অথবা মাংস, সঙ্গে সবজি। ধ্যান করছেন, নিয়মিত হাঁটাহাঁটিও করছেন। তাঁর দাবি, এ নিয়মের ফলে তাঁর খাওয়ার চিন্তা বাদ যাচ্ছে। ফলে, কাজের বাড়তি সময় পাচ্ছেন।

৪২ বছর বয়সী এ উদ্যোক্তার খাদ্যাভ্যাসের বিষয়টি ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচিত হচ্ছে। দিনে ২২ ঘণ্টা না খেয়ে থাকার যে নিয়ম তিনি পালন করছেন, তা ঠিক কি না, এটি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।

সম্প্রতি ফিটনেস নিয়ে কাজ করা বেন গ্রিনফিল্ডের সঙ্গে পডকাস্টে অংশ নিয়ে নিজের খাদ্যাভ্যাসের কথা জানান ডরসি। তিনি বলেন, এখন দিনে ২২ ঘণ্টা উপোস করছেন তিনি। পাঁচ মাইল হেঁটে অফিস যান। সকালের নাশতা ও দুপুরের খাবার এড়িয়ে যান। কেবল সালাদের সঙ্গে মাংস বা মাছ ও সবুজ শাকসবজি খান। এরপর কিছু ফল খান। এর মধ্যেই মন পরিচ্ছন্ন রাখার উদ্দেশ্যে ১৫ মিনিট বরফের মধ্যে কাটান। সপ্তাহান্তে উপোসের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেন। দুই দিন শুধু পানি পান করে কাটান।

ডরসি বলেছেন, তিনি শরীরকে শাস্তি দেন মস্তিষ্ককে ক্ষুরধার করতে। এতে অনেক বেশি মনোনিবেশ করতে পারেন তিনি। বিছানায় গিয়ে ১০ মিনিটে ঘুমাতে পারেন।ডরসির সপ্তাহে মাত্র পাঁচবার খাবারের এ অভ্যাস নিয়ে এখন নানা বিতর্ক তৈরি হচ্ছে। গত জানুয়ারি মাসে এক টুইটে নিজের এই তপস্যার কথা জানানোর পর থেকে এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। ওই সময় অবশ্য দিনে দুই ঘণ্টা মেডিটেশন করার কথাও বলেছিলেন তিনি।

এক টুইটে ডরসি বলেছেন, কিছুদিন ধরে উপোস থাকার অভ্যাস করার ফলে বড় একটি পরিবর্তন তিনি লক্ষ করেছেন। তা হচ্ছে সময় থমকে যাওয়া। এখন দিন অনেক দীর্ঘ মনে হয়। সকালের নাশতা, দুপুরের খাবার বা রাতের খাবারের বিভাজন থাকে না।

ডরসির টুইটের জবাবে একজন লিখেছেন, খাওয়ার চরম বিকৃতি ও দুঃখ বিলাসিতা নিয়ে খেলা করা মজার বিষয় নিশ্চয়!